জেনে নিন শীতের কোন সবজিটি আপনার জন্য!

নাদিয়া সারাবছর ধরে অপেক্ষা করে কবে শীতকাল আসবে আর শীতের মজাদার সবজিগুলো সে খেতে পারবে। শাক সবজি আমরা সারা বছর ধরেই বাজারে পেয়ে থাকি তাহলে শীতের সবজি নিয়ে নাদিয়ার এতো আগ্রহ কেন?

আমরা কি জানি শীতকালে কি কি সবজি পাওয়া যায় এবং তা স্বাস্থ্যের জন্য কতটা প্রয়োজন ? চলুন জেনে নেই শীতকালীন কিছু সব্জির পুষ্টি গুনাগুন
–শীতকালের সবজির নাম নিতে গেলে প্রথমেই আসবে ফুলকপির নাম। শীতকালে গরম ভাত ফুলকপি শোল মাছের তরকারি হলে কি আর কিছু লাগে? হ্যা আসুন আমরা আজ ফুলকপি যে শুধু স্বাদে নয় বরং গুণেও সেরা তার ই আলোচনা করবো-
-ফুলকপিতে রয়েছে ভিটামিন এ , বি ও সি
-এছাড়াও আছে প্রচুর পরিমাণে আয়রন , ফসফরাস ,পটাশিয়াম ও সালফার
-গর্ভবতী মা , বাড়ন্ত শিশু ও অতিরিক্ত শারীরিক পরিশ্রম  করা মানুষের জন্য ফুলকপি বেশ উপকারি
-ফুলকপি কোলেস্টেরল মুক্ত এবং পাকস্থলীর ক্যান্সার প্রতিরোধে বেশ কার্যকরী
-মুত্রথলি ও প্রোস্টেট , স্তন ও ডিম্বাশয় ক্যান্সার প্রতিরোধে ফুলকপির ভূমিকা অনন্য
-শীতকালীন বিভিন্ন রোগ যেমন জর, সর্দি , কাশি ও টনসিল প্রতিরোধে এটি ভূমিকা রাখে

এবার আসি শীতের অন্যতম মজাদার সবজি বাধাকপি গুণ কীর্তন নিয়ে। শীতের বিকেল কি বাধাকপির বড়া ছাড়া জমে বলুন তো? গুণের সমারোহে ভরপুর এই সবজিটির সম্পর্কে এই বলছি শুনুন-
-শীতের সবজি গুলোর মধ্যে বাঁধাকপি  বেশ উচ্চ পুষ্টিগুণ সম্পন্ন ও সুস্বাদু
-বাঁধাকপিতে আছে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন সি ও ই
-কাঁচা বাঁধাকপি পাকস্থলীর বর্জ্য পরিষ্কার করে
-আবার রান্না করা বাঁধাকপি খাদ্য দ্রব্য হজমে সহায়ক
-কোলন ক্যান্সার সহ সকল ক্যান্সারের প্রতিরোধক হিসেবে এটি কার্যকর ভূমিকা পালন করে
-এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং মানবদেহের ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে , আলসার নিরাময় এবং দেহের রক্ত সঞ্চালনে উন্নতি সাধন করে

অনেকেই পছন্দ করেন না এই শুভ্র সাদা সবজি টি খেতে কিন্তু তার যে কত গুণের বাহার তাই জেনে নেই আসুন-
-শীতের সবজি মূলা কাঁচা ও রান্না উভয় অবস্থায় খাওয়া যায়
-মুলায় রয়েছে ভিটামিন সি এবং মূলার পাতায় ভিটামিন  এ এর পরিমান ৬ গুন বেশি
-মূলা হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়, শরীরের ওজন হ্রাস , আলসার ও বদহজম দূর করতে সাহায্য করে
-এছাড়াও কিডনি ও পিত্তথলিতে পাথর তৈরি প্রতিরোধ করে
-মুলাতে থাকা বিটা – ক্যারোটিন দৃষ্টি শক্তি বাড়ায় ও ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধি কর

সুন্দর মন মাতানো সুগন্ধ দিয়ে রান্নাকে আকর্ষণীয় করে তোলা ছাড়াও ধনেপাতার যে আরো কত গুণ রয়েছে তা কি জানেন-
-ধনেপাতা হল চর্বিহীন, ভিটামিন এ, সি, কে, ফলিক এসিড সমৃদ্ধ একটি সবজি যা আমাদের ত্বকের পুষ্টি যোগায় ,চুলের ক্ষয় রোধ করে
-ধনেপাতা রান্নার চেয়ে কাঁচা খেলে বেশি উপকার পাওয়া যায়
– আলঝেইমারস নামক মস্তিষ্কের  রোগ প্রতিরোধে ধনেপাতা দারুনভাবে কাজ করে
-ধনেপাতায় রয়েছে নানা ঔষধি গুনাগুন
-শীতকালীন ঠোঁট ফাটা ,ঠাণ্ডা লেগে যাওয়া, জর জর ভাব দূর করতে সাহায্য করে

শিম ভর্তা দিয়ে যদি এক প্লেট ধোয়া উঠা গরম ভাত  যদি আপনাকে এনে দেয়া হয় শীতের সকালে তা কি অগ্রাহ্য করা যায়? হ্যা এই সবজিটির পুষ্টি গুণ গুলো জেনে নিন আমাদের সাথে-
-শীতের পুষ্টি সম্পন্ন সবজি হল শিম
-শিমের আঁশ জাতীয় অংশ খাবার পরিপাকে সহায়তা করে, কোষ্ঠ কাঠিন্য দূর করে, ডায়রিয়া এর প্রকোপ কমায়
-কোলেস্টেরল এর মাত্রা কমায়
-শিমের ফুল রক্ত আমাশয়ের চিকিৎসা ব্যবহার করা যায়

শুধুমাত্র শীতকালীন সবজিই নয় বরং সব প্রকারের শাকসবজি তেই রয়েছে anti oxidant উপাদান যা ত্বকের বার্ধক্য রোধ করে এবং ত্বকের সজীবতা ধরে রাখে। তার পাশাপাশি শাক সবজি তে প্রচুর পানি রয়েছে যা দেহের পানির ঘাট তি পূরণ করে দেহকে সুস্থ ও সুন্দর রাখে  তাই সঠিক পরিমানে সবজি গ্রহন করুন তরুণ থাকুন।
লেখাঃশারমীন জাহান
খাদ্য ও পুষ্টি বিজ্ঞান বিভাগ
সম্পাদনাঃআয়েশা সিদ্দিকা মারিয়া
খাদ্য ও পুষ্টি বিজ্ঞান বিভাগ

2,010 total views, 2 views today

Any opinion ..?

Posted by pushtibarta

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *